June 29, 2022

Knight TV

fight for justice

পহেলা মহররম থেকে ওমরা পালন করতে পারবে বিদেশীরা।

মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গত দুই বছর সৌদি আরবে বিদেশিদের জন্য পবিত্র হজ ও ওমরাহ্‌ পালন বন্ধ রয়েছে। তবে অর্থনৈতিক অবস্থা ও টিকাদান পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে আগামী পহেলা মহররম ১৪৪৩ হিজরি (সম্ভাব্য ১০ আগস্ট) থেকে দেশটিতে বিদেশিরাও ওমরাহ্‌ হজ পালন করতে পারবেন।

তবে এই অতিমারির মধ্যে স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বিশ্বব্যাপী মুসলিমদের ওমরাহ্‌ হজ পালনে বেশকিছু শর্ত ও বিধি-নিষেধ জারি করেছে দেশটির হজ ও ওমরাহ্‌ মন্ত্রণালয়। দেশটির হারমাইন শরিফাইন ডিজিটাল মিডিয়া নামে একটি প্লাটফর্মে এই বিধিনিষেধগুলো তুলে ধরা হয়েছে।

১। লাল তালিকাভুক্ত ১৩টি দেশের নাগরিক ছাড়া অন্য যেকোন দেশের মুসলিমরাই ওমরাহ্‌ করতে পারবেন। দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে- আফগানিস্তান, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, মিসর, ইথিওপিয়া, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, নেবানন, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক, ভিয়েতনাম এবং আরব আমিরাত।

২। ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক মুসল্লিদের আগে থেকেই বাধ্যতামূলকভাবে করোনাভাইরাসের সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নিতে হবে। এক্ষেত্রে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নিতে বলেছে দেশটির মন্ত্রণালয়। এসব টিকার দুটি ডোজ গ্রহণ করা ছাড়া সৌদি আরবে প্রবেশ করা যাবে না।

৩। ১৮ বছর বয়স থেকে শুরু করে তদুর্ধ্ব বয়সীরা ওমরাহ পালন করতে পারবেন। তবে ১৮ বছরের নিচে কেউ ওমরা করতে পারবেন না।

৪। সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদন পাওয়া ৫০০ ওমরাহ এজেন্সির মাধ্যমেই কেবল ওমরাহ পালনে ইচ্ছুকদের সৌদি আরবে আসতে হবে।

৫। কেউ চীনের দুই ডোজ টিকা নিয়ে থাকলে তাকে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার বাড়তি বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে হবে।

এছাড়া ওমরা পালনে গমনেচ্ছুদের মাস্ক পরিধান এবং যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এই বিধিনিষেধে যে কোন সময় পরিবর্তন ও পরিমার্জন করতে পারে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ্‌ মন্ত্রনালয়।