June 29, 2022

Knight TV

fight for justice

পরিশোধনাগার বিহীন শিল্পকারখানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে- পরিবেশ মন্ত্রী

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি বলেছেন, শিল্পকারখানার দূষিত বর্জ্য পানি দূষণের অন্যতম কারণ। শিল্পকারখানায় দূষণ নিয়ন্ত্রণের জন্য বর্জ্য পরিশোধনাগার (ইটিপি) স্থাপনের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হয়। বর্জ্য পরিশোধনাগার বিহীন পানি দূষণকারী শিল্পকারখানা সমূহের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি আরো বলেন, ঢাকাসহ সারা দেশের সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাগুলির বর্জ্য ব্যবস্থাপনায়ও বিশেষ উদ্যোগ নেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভাসমূহ জায়গা নির্ধারণ করলে সেখানে বর্জ্য ব্যবস্থায় বিশেষ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।
পরিবেশ মন্ত্রী আজ, ২৬ জানুয়ারি, বিকেলে সচিবালয়স্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সাথে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন। এ সময় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার এমপি, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মুজিবুর রহমান হাওলাদার, সদস্য মোঃ আলাউদ্দিন, মোঃ মুনিরুজ্জামান, ফিদা আব্দুল্লাহ খান, মন্ত্রণালয়ের সচিব জিয়াউল হাসান এনডিসি, অতিরিক্ত সচিব, ড. মোঃ বিল্লাল হোসেন, ড. এম মনজুরুল হান্নান, আলমগীর মুহম্মদ মনসুরউল আলম, পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এ,কে,এম রফিক আহাম্মদ, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সচিবসহ মন্ত্রণালয় ও কমিশনের উর্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনার শুরুতে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম্যান বাংলাদেশের নদীসমূহের অবৈধ দখল, দূষণ ও নাব্যতা বিষয়ে বিস্তারিত ভিডিও প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন। তিনি সারাদেশের নদীসমূহ কিভাবে অবৈধ দখলদারদের কবলে পড়েছে সে বিষয়ে প্রতিবেদনে বিস্তারিত উল্লেখ করেন।

দেশের নদীসমূহের দূষণের ভয়াবহ পরিস্থিতি অবহিত হয়ে পরিবেশ মন্ত্রী জানান, দেশের নদীর পানিকে মানুষের স্বাস্থ্যসম্মত ব্যবহারের লক্ষ্যে নদীকে দূষণমুক্ত রাখতে পরিবেশ মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। তিনি বলেন, জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের বাস্তব অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ কাজে লাগিয়ে নদী সমূহ রক্ষা করতে তাঁর মন্ত্রণালয় কাজ করবে।