June 29, 2022

Knight TV

fight for justice

ট্রাম্পের অভিযোগ, বাইডেনের কারণে শূন্য হাতে আফগানিস্তান ছাড়তে হয়েছে

স্থানীয় সময় রোববার (১৫ আগস্ট) দেওয়া এক বিবৃতিতে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিযোগ, বাইডেনের কারণে মার্কিন বাহিনীকে শূন্য হাতে আফগানিস্তান ছাড়তে হয়েছে। তিনি ক্ষমতায় থাকলে দেশটি থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার আরও সফলতার সঙ্গে হতো। খবর আল জাজিরার।
এক বিবৃতিতে রোববার বাইডেনের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, ‘আফগানিস্তানে যা ঘটতে দিয়েছেন তাতে অপমানবোধ থেকে তার (বাইডেন) পদত্যাগ করা উচিত।’
ট্রাম্পের আমলে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। সেনা প্রত্যাহার করতে আফগান তালেবানের সঙ্গে চুক্তি সই হয় ওইসময়। তবে বাইডেন ক্ষমতায় এসে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার পুরোপুরি শেষ করার সময়সীমা নির্ধারণ করেন। শুরু হয় প্রত্যাহার কার্যক্রম। আর তখন থেকেই তালেবান যোদ্ধারা আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিতে শুরু করে।
এ ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার কাবুলে দখল করে তালেবান যোদ্ধারা। এসময় আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি পরিবারসহ দেশ ছেড়ে তাজিকিস্তানের পালিয়ে যায়। এর পরপরই আফগানিস্তানের প্রেসিডেনশিয়াল প্যালেসের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান বাহিনী।
অন্যদিকে ট্রাম্পের পাল্টা সমালোচনা করেছে জো বাইডেন প্রশাসন। তাদের দাবি, আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে তালেবানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে ট্রাম্পের আমলেই।
অবশ্য আফগানিস্তান থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া ঠিক করার ক্ষমতা বাইডেনের হাতে ছিল। বাইডেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা স্বীকার করছেন, আফগান বাহিনীর সামর্থ্য আরও বেশি বলে ধারণা করেছিলেন তারা।

পুরো আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে সশস্ত্র বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালেবান। এই পরিস্থিতিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পদত্যাগ দাবি করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ।