June 29, 2022

Knight TV

fight for justice

টাকা উধাও কাণ্ডে রামগতির পিআইওর বদলি

পিআইও রিয়াদ পাশের কমলনগর উপজেলায় অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনকালে কার্যালয় থেকে ১৭ লাখ টাকা উধাও হওয়ার ঘটনা প্রচার চালায়। এজন্য তিনি তার কার্যালয়ের সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর আবদুল বাকেরসহ চার জনকে থানায় নিয়ে পুলিশের সহায়তায় রাতভর আটক রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। পরদিন আটকদের থানা থেকে ছাড়িয়ে নেনও তিনি। তখন টাকার বিষয়ে পিআইও রিয়াদ অসঙ্গতিপূর্ণ ও বহুমুখী বক্তব্য দিয়েছিলেন।

কার্যালয়ে ওই টাকার উৎস খুঁজতে তদন্ত কমিটি করেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ। পরবর্তী সময়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা ও লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শতরূপা তালুকদারের তদন্ত প্রতিবেদন ও সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে পিআইও রিয়াদকে অন্যত্র বদলি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পিআইও মোশারফ হোসেন বলেন, বদলির কারণে রামগতির কর্মকর্তাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। পদায়ন হওয়া কর্মকর্তা যোগদান করা পর্যন্ত তাকে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করার জন্য চিঠি দেওয়া হয়েছে।

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার সেই প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) রিয়াদ হোসেনকে চট্টগ্রামের চন্দনাইশে বদলি করা হয়েছে। একইসাথে তার স্থলে পদায়ন করা হয়েছে চন্দনাইশ উপজেলার পিআইও জহিরুল ইসলামকে। মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট ) রিয়াদকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি (রিলিজ) দেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ। পদায়ন হওয়া জহিরুল রামগতিতে যোগদান না করা পর্যন্ত অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করবেন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার পিআইও মোশারফ হোসেন। ২৪ আগস্ট তারিখের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের প্রশাসন-১ অধিশাখার উপসচিব ড. মো. হাবিব উল্লাহ বাহারের স্বাক্ষর করা চিঠিতে পিআইও রিয়াদকে বদলিপূর্বক পদায়ন করা হয়েছে। রিয়াদ কমলনগর উপজেলায় অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনকালে বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে সমালোচিত হন। বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার বিতর্কিত কর্মকাণ্ড নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়।