June 27, 2022

Knight TV

fight for justice

খুব শীঘ্রই হতাশা কাটবে বাংলা সিনেমার।- হাসান মাহমুদ।

সরকারের এক হাজার কোটি টাকার ঋণ তহবিলের কার্য্ক্রম শুরু হচ্ছে খুব শীঘ্রই। এরই মধ্যে সমস্ত তফসিলি ব্যাংকে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানান তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। সিনেমা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, খুব শীঘ্রই হতাশা কাটবে বাংলা সিনেমার।

প্রদর্শক সমিতির তথ্যমতে, সাদাকালো যুগ পরবর্তী নব্বই দশকে দেশে সিনেমা হলের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৪৩৫টি। কমতে কমতে বছর দুয়েক আগে সংখ্যা দাঁড়ায় ২৬০টিতে। বিশেষ দিনে যা বেড়ে হতো ৩০০। কিন্তু চলতি বছরে সংখ্যাটা মাত্র ৬৮টি। আরও অবাক করা তথ্য দেশে ২৫টি জেলায় এখন আর নেই কোনো সিনেমা হল।

এমন বাস্তবতায় সরকার স্বল্প সুদে দীর্ঘমেয়াদী ঋণ দিতে ১ হাজার কোটি টাকার তহবিল গঠন করেছেন। যেই খবর হল মালিকদের দিয়েছে স্বস্তি। আগামী দু-তিন মাসের মধ্যে এর কার্য্ক্রম শুরু হচ্ছে বলে জানান তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

প্রতিটি ঋণগ্রহীতা একক সিনেমা হলের বিপরীতে সর্বাধিক ৫ কোটি টাকা ঋণ পেতে সক্ষম হবেন। মহানগর অঞ্চলের ৫% সুদে এবং মহানগর অঞ্চলের বাইরের ৪.৫% সুদে ঋণ পাবেন হল মালিকরা। আর হল মালিকদের ঋণ পেতে সকল ধরণের সহযোগিতার কথা জানান বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির নেতারা।

চলচ্চিত্র শিল্পের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সরকারের এই উদ্যেগ কতটা কাজে লাগবে তা সময় বলে দিবে