June 27, 2022

Knight TV

fight for justice

ওয়েব সিরিজে টিকটকার অপু ভাই

রঙ করা চুল আর বিভিন্ন সংলাপ বলে নেটিজেনদের হাসির খোরাক জুগিয়েছেন অপু। টিকটক ভিডিও বানানোকে ঘিরে একটি মারামারির ঘটনায় তিনি জেলও খেটেছেন।

এবার তিনি কাজ করতে যাচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় নির্মাতা অনন্য মামুনের পরিচালনায় ‘সিনিয়র ভার্সেস জুনিয়র’ নামে একটি ওয়েব সিরিজে। বিষয়টি জানিয়ে নিজের ফেসুবকে একটি পোস্ট করেছিলেন পরিচালক অনন্য মামুন। তারপর থেকে নেট দুনিয়ায় শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনা। ক্ষোভ প্রকাশ করেও পোস্ট করেছেন অনেক নাট্যকর্মী ও অভিনয় শিল্পী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপু’র একটি ছবি পোস্ট করে নির্মাতা লিখেছেন,‘কে কিভাবে নেবেন আমি জানি না। তবে মানুষের চেষ্টাকে আমি সম্মান করি। যার চেষ্টা আছে আমি তাকে সাহায্য করি। ‘সিনিয়র ভার্সেস জুনিয়র’ ওয়েব সিরিজে আপনাদের সামনে অপু ভাই আসবে।’

অনন্য মামুন আরো জানান, ‘ওয়েব সিরিজে ‘আলিয়ান’ চরিত্রে অভিনয় করবেন অপু। তার আগে টানা একমাস অভিনয়ের প্রশিক্ষণ নেবেন তিনি। এরপর দাঁড়াবেন ক্যামেরার সামনে। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে ওয়েব সিরিজটির শুটিং। অপু ভাই ছাড়াও একঝাঁক নতুন মুখ দেখা যাবে এতে।’

অনন্য মামুন-এর ওই পোস্টের পর সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। খেপেছেন থিয়েটারকর্মী, চলচ্চিত্র শিল্পী ও সাধারণ দর্শকরাও। অনন্য মামুনকে উদ্দেশ্য করে রিয়া নামের একজন লিখেছেন, ‘খুবই ভালো কাজ করছেন। পচে যাওয়া ইন্ডাস্ট্রিতে পচা মালের সরবরাহ বাড়াচ্ছেন। এদিকে আসল মেধাবীরা সারা জীবন স্ট্রাগল করে যাবে এসব ছাগলের জন্য।’

জাকির হোসেন নামে একজন লিখেছেন, ‘থিয়েটারে কত লোক অবহেলায় থাকে, অথচ টিকটক ইউটিউবের ক্রিঞ্জ কনটেন্ট বানানো মানুষেরা অভিনেতা হচ্ছে। আহা কতো কিছু দেখতে হচ্ছে, জনগণ খাবেও সেরকম।’

বিভিন্ন চলচ্চিত্র ও নাটকের ফেসবুক গ্রুপেও চলছে ব্যাপক সমালোচনা। বিশেষ করে থিয়েটার কর্মীরা, যারা অভিনয়কে ক্যারিয়ার করতে চান, তারা অনন্য মামুন-এর এই উদ্যোগের সমালোচনা করছেন।

তরুণ অভিনয় শিল্পী তানজিল বলেছেন, ‘থিয়েটার করা অসংখ্য ছেলে-মেয়ে আছে, যারা অভিনয়টা ধারণ করে। যারা কাজটা বুঝে এবং ভালোবাসে। কিন্তু তাদের কেউ সুযোগ দেয় না। সুযোগ দিলেও এমন ক্যারেক্টার দেওয়া হয়, যা হয়তো কারো চোখেই পড়ে না। আমি আপনার দোষ দেবো না, কেননা ফলোয়ার দেখে কাজ করার ট্রেন্ড অন্য অনেক পরিচালক অনেক আগেই নিয়ে এসেছে দেশে। শুভ কামনা রইলো আপনার নতুন প্রজেক্টের জন্য।’